মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

দিগনগর স্তূপ

ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুন্ডু উপজেলার অন্তর্গত দিগনগর গ্রাম অতি প্রাচীন। হরিনাকুন্ডু পৌর শহরের উত্তরে অবস্থিত এই বর্ধিষ্ঞু দিগনগর গ্রামে একটি প্রাচীন দীঘি বিদ্যমান। এই জলাশয়ের (দীঘি) পশ্চিম তীরে একটি উচ্চ ঢিবি দেখা যায়। ইহা দিগনগর স্তূপ নামে পরিচিত। এই স্তুপের পশ্চিম এ পূর্ব দিক দিয়ে পাঁকা সরু রাস্তা গ্রামের মধ্যে চলে গেছে। একটি ধান ক্ষেতের মধ্যে দন্ডায়মান এ প্রাচীন স্তূপ অতিসহজেই পথিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। বর্তমানে এই ঢিবিটির উচ্চতা ৩ ফুটের বেশি না হলেও এটি আগে আরো অনেক উচু ছিল। ঢিবির উপরিভাগ থেকে ইট-পাথর সরানো এবং সেখানে চাষাবাদের ফলে এর উচ্চতা বহুলাংশে কমে গেছে। তবে ঢিবির ভেতরে প্রশস্ত দেয়ালের অস্তিত্ব এখনো টিকে আছে। ঢিবির চারদিকে বর্তমানে কৃষিক্ষেত্র। কিন্তু সেসব স্থানে প্রচুর প্রাচীন ইট ও মৃৎপাত্রের ভগ্নাংশ দেখা যায়। তাতে মনে হয় এককালে এখানে বেশ কিছু ইমারতাদির অস্তিত্ব ছিল। স্থানীয় জন প্রবাদ মতে ঢিবিটিকে শালিবাহন রাজার রাজবাড়ি বলে চিহ্নিত করা হয়। তিনি এ স্থান থেকে যশোর পর্যন্ত কড়ি দিয়ে এক রাজপথ নির্মাণ করেছিলেন বলে শোনা যায়। সেই রাজপথ এখনও কড়ির জাংগাল নামে পরিচিত এবং সেই জাংগালের কিছু কিছু ধ্বংসাবশেষ এখনও কোথাও কোথাও নজরে পড়ে।

এখানে মুসলিম আমলের ইমারতির ধ্বংসাবশেষ আছে বলে মনে করা হয়ে থাকে। তবে ঢিবি ও পার্শ্ববর্তী এলাকা দেখে মনে হয় এগুলো হিন্দু-বৌদ্ধ যুগের প্রাচীন ধ্বংসাবশেষ। প্রাচীন প্রত্মতত্ত্ব হিসেবে স্তূপটি বাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ সংরক্ষণ করছে।


Share with :

Facebook Twitter